রেডিয়েশন থেরাপি

এই পোস্টে পড়ুন: English العربية 'তে

রেডিয়েশন থেরাপি কি?

রেডিয়েশন থেরাপি হল এক ধরনের ক্যান্সার চিকিৎসা যা ব্যবহার করে অতি উচ্চমাত্রার রেডিয়েশন (রশ্মি বিকিরণ) ডোজ বা মাত্রা যা ক্যান্সার সেল বা কোষকে নির্মূল করে এবং মেরে ফেলে অথবা ক্ষতিকর (ক্যান্সার যুক্ত) টিউমার গুলিকে শরীরের মধ্যে সংকুচিত করে তোলে। ঘটনাক্রমে, প্রত্যেক সময় যখন আপনি এক্সরে (রঞ্জন রশ্মি) ব্যবহার করেন শরীরের কোন ভাঙ্গা হাড় কে প্রত্যক্ষ করার জন্য, আপনি তখন আল্ট্রা লো ডোজ বা অতি নিম্নমাত্রার রেডিয়েশন থেরাপি (রশ্মি বিকিরণ যুক্ত চিকিৎসা) ব্যবহার করেন চিত্রগুলি কে পাওয়ার জন্য।

রেডিয়েশন থেরাপি বা রশ্মি বিকিরণ যুক্ত চিকিৎসার প্রাথমিক লক্ষ্য হল অস্বাভাবিক কোষের সংখ্যা বৃদ্ধির (ক্যান্সার যুক্ত কোষ এর ক্ষেত্রে) উপর নজর রাখা এবং চারিদিকের স্বাস্থ্যকর সেল বা কোষগুলোকে ক্ষতিগ্রস্ত না করে বৃদ্ধিপ্রাপ্ত ক্যান্সার সেল বা কোষগুলিকে ধ্বংস করা। সম্ভবত এই কারণের জন্যই রেডিয়েশন থেরাপি নির্ভুল রূপে এবং দক্ষতার ভিত্তিতে কেবলমাত্র পেশাদার রেডিয়েশন অনকোলজিস্ট দের দ্বারা পরিচালিত করা হয়।

দ্রুত জরুরী তথ্য:

রেডিয়েশন থেরাপি ক্যান্সার চিকিৎসার জন্য বেশ জনপ্রিয়, তবে আপনি কি জানেন যে এই ধরনের চিকিৎসা পদ্ধতি থাইরয়েডের গোলযোগ এবং রক্ত সম্পর্কিত কিছু রোগের জন্যও উপযুক্ত ভাবে ব্যবহার করা যেতে পারে?

রেডিয়েশন থেরাপি কিরূপে কাজ করে?

রেডিয়েশন থেরাপি বা রশ্মি বিকিরণ যুক্ত চিকিৎসার সম্পূর্ণ মূলবিন্দুটি হল,প্রাথমিক গ্রুপে ক্যান্সার রোগের জন্য দায়ী যেসব অস্বাভাবিক কোষগুলি রয়েছে তাদের বৃদ্ধি কে প্রতিহত করা। বর্তমানে, এই পদ্ধতিটি উচ্চ, ফোকাস যুক্ত আলো-বাতাস তরঙ্গ ব্যবহার করে করা হয় যা বিজ্ঞান অনুসারে ক্যান্সার কোষগুলির ডিএনএ/DNA-কে এমনভাবে ভেঙে দেয় যে তাদের পক্ষে পুনর্গঠন বা বৃদ্ধি অসম্ভব হয়ে যায়।

তবে একথা অবশ্যই খেয়াল রাখবেন, রেডিয়েশন থেরাপি ব্যবহারের সঙ্গে সঙ্গেই তা ক্যান্সারজনিত কোষগুলিতে প্রভাব ফেলে না। পদ্ধতিটির প্রভাব শুরু হতে কয়েক সপ্তাহ সময় লাগতে পারে এবং এই চিকিৎসার ফলে যেহেতু রেডিয়েশন টি আপনার শরীরে থেকে যায় তার ফলে, আগামী কয়েক সপ্তাহ ধরে তা ক্যান্সার সেল বা কোষগুলোকে মেরে ফেলতে সাহায্য করে। ক্যান্সার সেল বা কোষগুলোতে স্থায়ীভাবে প্রভাব ফেলতে প্রায়শই, একাধিকবার রেডিয়েশন থেরাপি গ্রহণের জন্য পরামর্শ দেওয়া হয়।

রেডিয়েশন থেরাপির প্রকারভেদ : এক্সটার্নাল বিম (বাহ্যিক রশ্মি) বনাম ইন্টার্নাল রেডিয়েশন (আভ্যন্তরীণ রশ্মি বিকিরণ)

রেডিয়েশন থেরাপির ভিন্ন ভিন্ন প্রকার গুলি অনেকগুলি পরিবেশ-পরিস্থিতির পরিবর্তনশীলতার উপর নির্ভর করে, যার মধ্যে রয়েছে –

  • ক্যান্সারের ধরন বা শরীরের কোন অংশ আক্রান্ত
  • টিউমারের বৃদ্ধির হার অথবা সাইজ বা আকৃতি
  • পূর্ববর্তী চিকিৎসার খতিয়ান/বর্তমান চিকিৎসা বিধেয়ক পরিস্থিতি
  • বিকল্প চিকিৎসা পদ্ধতি গুলি আরো ভালো হবে কি হবে না
  • বয়স, টিউমারটি কতটা বেশি ক্ষতিগ্রস্ত, রোগীর রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা ইত্যাদি

এক্সটার্নাল বিম রেডিয়েশন (বাহ্যিক রশ্মি বিকিরণ)

এক্সটার্নাল বিম রেডিয়েশন বা বাহ্যিক রশ্মি বিকিরণ পদ্ধতিতে একটি মেশিন ব্যবহার করা হয় ক্যান্সার সেল গুলি বা কোষগুলি/টিউমারগুলি কে লক্ষ্য করে রেডিয়েশন তরঙ্গ পৌঁছে দেওয়ার জন্য। এটি একটি আলোকরশ্মি কেন্দ্রিক, স্থানীয় চিকিৎসা পদ্ধতি যেখানে যন্ত্র মেশিনটি আপনাকে স্পর্শ করে না, তবে এটি ক্যানসারের কোষ গুলির সঙ্গে শরীরের অংশের চারপাশে ঘুরতে থাকবে।

ইন্টার্নাল রেডিয়েশন (আভ্যন্তরীণ বিকিরণ)

ইন্টার্নাল রেডিয়েশন (আভ্যন্তরীণ বিকিরণ) ব্যবহার করে অতি তীক্ষ্ণতা যুক্ত বা আক্রমণাত্মক চিকিৎসা পদ্ধতি যেখানে রেডিয়েশন বিকিরণ আপনার শরীরে কঠিন/তরল আকারে প্রবেশ করানো হয়।

  • ব্রাকিওথেরাপি হল এক ধরনের ইন্টার্নাল রেডিয়েশন বা আভ্যন্তরীণ বিকিরণ থেরাপি ক্যান্সার কোষকে লক্ষ্য করে ক্যাপসুল বা বীজ (কঠিন) আকারে একটি তেজস্ক্রিয় প্রতিস্থাপন ব্যবহার করে।
  • সিস্টেমিক রেডিয়েশন থেরাপি হল,ইন্টার্নাল রেডিয়েশন বা আভ্যন্তরীণ বিকিরণের একটি অন্য রূপ যা ক্যান্সার কোষকে লক্ষ্য করে কোষটিকে গ্রাস করা, IV বা ইনজেকশন (তরল) এর ব্যবহার করে।

রেডিয়েশন থেরাপির ভিন্ন কোন পার্শপ্রতিক্রিয়া আছে কিনা ?

রেডিয়েশন থেরাপি তার পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া গুলির জন্য বিশেষভাবে পরিচিত যা ভিন্ন ভিন্ন মানুষের ক্ষেত্রে পরিবর্তনশীল হয়। এটি নির্ভর করে রেডিয়েশনের প্রভাব এর পরিমান, দেহের যে অংশটি রেডিয়েশন বিকিরণ এর সংস্পর্শে এসেছে তার প্রভাব কতখানি, সামগ্রিক স্বাস্থ্য এবং রোগপ্রতিরোধের ক্ষমতা / রোগীর শরীরের অভ্যন্তরীণ মূল শক্তির পরিমাণ ইত্যাদির উপর।

স্বল্পমেয়াদী পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া

প্রক্রিয়াটি চলাকালীন অথবা প্রক্রিয়াটি সমাপ্ত হবার তাৎক্ষণিক পরে এগুলি দেখা যেতে পারে এবং এগুলি কয়েকদিন পর অথবা কয়েক সপ্তাহ পরেও সঙ্গে থাকতে পারে। এরকম পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া গুলির মধ্যে রয়েছে :

  • চরমতম ক্লান্তি
  • গা-গোলানোভাবের অবিরাম অনুভূতি
    (বমি বমি ভাব সহ হতে পারে)
  • ডায়রিয়া
  • চুল পড়া
  • ত্বকের রঙ / গঠনে পরিবর্তন

 

এই পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া গুলি প্রায়শই কম ক্ষতিকর (যদি আপনার ধৈর্য ধরার অভিজ্ঞতা থাকে) এবং বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এগুলি নিজের থেকেই চলে যায়।

দীর্ঘমেয়াদী পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া গুলি

এই ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া গুলি থেকে বেরিয়ে আসা খুবই কষ্টসাধ্য এবং প্রায়ই এগুলি দীর্ঘ দিন জীবিত থাকে যদি না এগুলি স্থায়ীভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এই ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া গুলির মধ্যে রয়েছে :

  • লিম্ফিডিমা – একটি অবস্থা যেখানে লিম্ফ (লিম্ফতরলটি তখন গঠিত হয় যখন এটি নাড়ীর পাতলা প্রাচীর এর মধ্য দিয়ে শরীরের তন্তু গুলির যায়) তরলটি গঠিত হয় রোগীদের চরম ব্যথা এবং অস্বস্তি সৃষ্টি করে।
  • হৃদপিণ্ড অথবা ফুসফুসের ক্ষতি (যদি রেডিয়েশন থেরাপিটি বুক / বুকের কাছাকাছি কোথাও করা হয়)
  • থাইরয়েডের সমস্যার বৃদ্ধি হওয়া
  • মহিলাদের মধ্যে হরমোনের পরিবর্তন যা রজঃস্রাবের বা মাসিকের অনিয়ম অথবা মেনোপজের সৃষ্টি করতে পারে

 

তবে সুখবর টি হল, যারা রেডিয়েশন থেরাপিটি করান তাদের প্রত্যেককে এই অবস্থা থেকে দীর্ঘমেয়াদী পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াগুলির অভিজ্ঞতা বহন করতে হয় না। যাইহোক, রেডিয়েশনের প্রভাব কিছু কিছু শরীরের অংশে দীর্ঘমেয়াদি প্রভাবের ঝুঁকি বাড়িয়ে তুলতে পারে।

রেডিয়েশন থেরাপি ব্যবহার করে কোন ধরনের ক্যান্সারের চিকিৎসা করা যেতে পারে?

রেডিয়েশন থেরাপি প্রায়শই ক্যান্সারের অবস্থান কোথায় তার দ্বারা নির্ধারিত হয়। উদাহরণস্বরূপ, ব্রাকিওথেরাপি মূলত পক্ষে চোখ, ঘাড়, স্তন,জরায়ু বা প্রোস্টেট ক্যান্সারের জন্য পরামর্শ দেয়া হয়। তবে সিস্টেমিক রেডিয়েশন কিন্তু ব্যবহার করা হয়ে থাকে থাইরয়েড গ্রন্থি এবং হরমোন সম্পর্কিত ক্যান্সারগুলির জন্য। আপনার ডায়াগনোসিস বা রোগ নির্ণয়ের উপর ভিত্তি করে, আপনার পেশাদারী স্বাস্থ্য পরিষেবা প্রদানকারী দলটি কোন রেডিয়েশন থেরাপিটি কোন অংশের জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে তার সর্বশ্রেষ্ঠ বিচারক হবেন।

রেডিয়েশন থেরাপির জন্য আদর্শ দল

এখানে পেশাদার স্বাস্থ্য পরিষেবা প্রদানকারী প্রধান দলের উপযুক্ত বৈশিষ্ট্য গুলি কে একত্রিত করা হল, যাদেরকে আপনার চিকিৎসার পরিষেবা দেওয়ার জন্য নিয়োগ করা হবে –

  • রেডিও অনকোলজিস্ট এবং বিষয় সম্পর্কিত নার্স
  • রেডিয়েশন থেরাপিস্ট
  • রেডিয়েশন ফিজিসিস্ট
  • ডোজিমেট্রিস্ট (সঠিক ডোজ বা মাত্রার প্রয়োজনীয়তা নির্ধারণ করার জন্য)
  • পুষ্টিতত্ত্ববিদ / সহায়ক সাহায্য / ফিজিক্যাল বা শারীরিক থেরাপিস্ট (থেরাপির পশ্চাৎ অতিরিক্ত সহায়ক রূপে নিযুক্ত করা হবে)

রেডিয়েশন থেরাপির পাশাপাশি অন্যান্য কি কি প্রকারের চিকিৎসা পদ্ধতি ব্যবহৃত হয়?

রেডিয়েশন থেরাপি এককভাবে সংঘটিত কোন চিকিৎসা পদ্ধতি নয়। প্রায়শই ক্যান্সার চিকিৎসা অনেকগুলি পদ্ধতির সংগঠিত রূপকে অন্তর্ভুক্ত করে, যার মধ্যে রেডিয়েশন থেরাপি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি পদ্ধতি। তবে ক্যান্সার চিকিৎসার ক্ষেত্রে কেমো, টার্গেটেড (সঠিক নিশানা) থেরাপি বা সার্জারির (অস্ত্রোপচার) মত প্রক্রিয়াগুলি এখনো প্রথম সারির চিকিৎসা পদ্ধতি। রেডিয়েশন থেরাপি উপযুক্ত চিকিৎসা পদ্ধতিগুলিতে অথবা এগুলির মধ্যে যেকোন একটির সাথে সম্মিলিতভাবে প্রয়োগ করা হয় সর্বোচ্চ প্রভাব ফেলতে, যন্ত্রণা থেকে মুক্তি এবং অবিচলিত ভাবে ক্যান্সার নিরাময়ের জন্য।

প্রাক্ রেডিয়েশন থেরাপি চিকিৎসার প্রস্তুতিকরণ

আপনার রেডিয়েশন থেরাপি চিকিৎসা হওয়ার পূর্বে যে যে বিষয় গুলি আপনার সম্পূর্ণ করা উচিত সেই সব, বিষয়গুলিকে দ্রুত একত্রিত করা হল। এগুলি অন্তর্ভুক্ত করে –

  • অতীত ও বর্তমান ওষুধের প্রেসক্রিপশন সহ পুঙ্খানুপুঙ্খ ভাবে পূর্বের মেডিকেল বা চিকিৎসা গ্রহণের ইতিহাস, পেশাদার চিকিৎসকদের দিয়ে সম্পূর্ণরূপে সহযোগিতা করা।
  • আপনার ডাক্তার কিছু শারীরিক পরীক্ষা করার জন্য লিখে দেবেন যা আপনাকে সময় মতো শেষ করে আপনার ডাক্তারের কাছে সঠিক সময়ে জমা দিতে হবে।
  • প্রক্রিয়াটি ঘটার ২৪ ঘন্টা পূর্বে আপনার খাদ্যবিধি কি রকমের হবে সে সম্পর্কে আপনার ডাক্তারকে জিজ্ঞাসা করুন।

রেডিয়েশন থেরাপি চলাকালীন কি কি প্রত্যাশা রাখবেন ?

আমরা অবগত আছি, রেডিয়েশন থেরাপির জন্য অবশ্যই আপনার স্নায়ু বিদারক উৎকণ্ঠার উপস্থিতি হতে পারে তাই এই প্রক্রিয়া চলাকালীন আপনার যা কিছু প্রত্যাশা করা উচিত তার সমস্তই আমরা এখানে তালিকাভুক্ত করেছি।

  • প্রক্রিয়াটি শুরু হওয়ার পূর্বে,আপনার রেডিয়েশন অনকোলজিস্ট থেরাপির ধরণ এবং পদ্ধতির জন্য প্রয়োজনীয় ডোজ বা মাত্রার নির্ধারণ করবেন।
  • প্রাথমিক রূপে কোথায় রেডিয়েশন এর সঠিক নিশানা করা উচিত সেই সঠিক বিন্দুটি সনাক্ত করতে একটি ইমেজ টেস্টিং বা চিত্র পরীক্ষার দ্বারা নির্ধারিত করা হবে।
  • আপনাকে একটি প্লাস্টার যুক্ত আবরণ পোশাকের মতো পরার জন্য বলা হবে, যাতে করে রেডিয়েশন প্রক্রিয়াটির মূল লক্ষ্য বিন্দুটি সম্পূর্ণ পদ্ধতিটি চলাকালীন অবিচল ও স্থির রূপে থাকতে পারে। চিন্তা করবেন না, এটি অস্থায়ী।
  • প্রায়শই আভ্যন্তরীণ রেডিয়েশনের মধ্য দিয়ে যাওয়ার সময় আনাস্তেসিয়া (অসাড়কারী) প্রয়োগ করা হয় ব্যথা এবং অস্বস্তিকে কম করার জন্য।
  • বাহ্যিক রেডিয়েশন থেরাপি বা বিকিরণ পদ্ধতি ব্যথাহীন এবং প্রক্রিয়া চলাকালীন আপনি কোন অস্বস্তি বোধ করবেন না। তবে প্রাইভেসি রেডিয়েশনের বা বিকিরণের সংস্পর্শে থাকা চারপাশের স্বাস্থ্যকর টিস্যু বা তন্তুগুলি এবং কোষগুলিতে সমস্যার লক্ষণ দেখা যেতে পারে।
  • রেডিয়েশন থেরাপি কয়েক সপ্তাহ ধরে চলতে থাকে – প্রায়শই দুইদিনের বিরতিসহ টানা পাঁচদিন ধরে চলতে থাকে চারপাশের আক্রান্ত টিস্যু বা তন্তুগুলিকে নিরাময় করতে দেওয়ার সময় দিয়ে।

আপনার রেডিয়েশন থেরাপির পশ্চাৎ যত্ন কেমন প্রকারে হবে?

রেডিয়েশন থেরাপি কিছু স্বল্পমেয়াদী ও দীর্ঘমেয়াদী পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দিয়ে যেতে পারে,যার বেশিরভাগই আপনার ডায়েটে বা আহারাদির উপর প্রভাব ফেলবে। আমরা নিম্নে আপনার ডায়েট বা আহারাদির প্রয়োজনীয়তা গুলিকে নিম্নে সংক্ষিপ্ত রূপ রেখেছি, তবে সবচেয়ে ভালো হয় যদি আপনি আপনার নিযুক্ত করা পুষ্টিতত্ত্ববিদের কাছে বিশদভাবে জিজ্ঞাসা করে নিতে পারেন যদিও, আহারাদির নিয়ম-কানুন ব্যক্তি থেকে ব্যক্তিতে পৃথক হয়।

ডায়েট চেক (আহারাদি নিয়ন্ত্রণ) :
এটি হওয়া থেকে গা – গোলানোভাব (এবং সম্ভবত বমি বমি ভাব) থির থাকবে, তাই আপনার শরীর এটির সাথে মুখের ঘা বা গলার সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে। যাইহোক, দেহের সুস্থতা পুনরুদ্ধারের জন্য প্রচুর পরিমাণে শক্তি প্রয়োজন যার কারনে আপনার প্রতিদিনের ডায়েটে বা আহারে উচ্চ ক্যালোরি এবং প্রোটিন গ্রহণ করা উচিত।

লাইফ স্টাইল চেক (জীবনযাপনে নিয়ন্ত্রণ) :
কিছু রোগী প্রতিদিনের কাজ চালিয়ে যাওয়ার জন্য এবং রেডিয়েশন প্রক্রিয়া চলাকালীন কাজ চালিয়ে যাওয়ার পক্ষে যথেষ্ট শক্ত সমর্থ, কারো কারো ক্ষেত্রে সাধারণ জীবনে ফিরে আসতে বেশ কিছুটা সময় প্রয়োজন হতে পারে। যেহেতু ক্লান্তি এই সময়ের মধ্যে একটি সাধারন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হবে, তাই আমরা রোগীদের বেশিরভাগ সময় বাড়ি থেকে বা একটি আরামদায়ক ব্যবস্থা প্রণালী থেকে কাজ করবার জন্য উৎসাহিত করি যেখানে, প্রয়োজন হিসেবে এবং যখন তাদের বিশ্রাম নেওয়ার দরকার তা গ্রহণ করতে পারে।

FAQs / অধিকতর জিজ্ঞাসিত প্রশ্নাবলী

রেডিয়েশন থেরাপি কি কেবল ক্যান্সার কে মেরে ফেলার জন্য ব্যবহৃত হয়?

প্রাথমিক রূপে বলা যায় হ্যাঁ, রেডিয়েশন থেরাপি সম্পূর্ণরূপে ক্যান্সার আক্রান্ত কোষগুলিকে হত্যা করার দিকে দৃষ্টি নিক্ষেপ করে তবে পুনরুদ্ধারের সময়কালে রোগীদের ব্যথা এবং অস্বস্তি থেকে নিরাময়ের জন্য রেডিয়েশন বা বিকিরণ পদ্ধতি ব্যবহার করা যেতে পারে।

পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া কতদিন স্থায়ী হতে পারে?

অনেকগুলি কারণের ওপর তা নির্ভর করে, আপনার রেডিয়েশন থেরাপি পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া গুলি যেমন, গা – গোলানো ভাব অথবা চরম ক্লান্তি রূপে প্রথমদিকের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া রূপে চিহ্নিত হতে পারে। এগুলি পদ্ধতিটি সম্পন্ন হওয়ার পর কয়েক সপ্তাহ যাবৎ স্থায়ী হতে পারে। পরবর্তী পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া গুলি যেমন হৃদপিণ্ড ও ফুসফুসের সমস্যা গুলি থেকে পুনরুদ্ধার হতে সম্ভবত কয়েক বছর সময় লাগতে পারে।

রেডিয়েশন থেরাপির জন্য কি চিকিৎসা সম্বন্ধীয় ছুটির প্রয়োজন?

এটি আপনার শরীরের নিরাময় ক্ষমতা এবং আপনার ক্লান্তির স্তরের উপর নির্ভর করে। যেহেতু চরম ক্লান্তি এবং বমি বমি ভাব এর মত পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া গুলি আপনাকে কয়েকদিন ধরে জড়িয়ে থাকে সেক্ষেত্রে, নিজেকে কাজ করার প্রতিশ্রুতি দেওয়ার আগে প্রথমত আপনার শারীরিক পরিস্থিতি সম্পর্কে অবগত হওয়া দরকার।

আমার পার্শ্ব - প্রতিক্রিয়া গুলি যদি ক্রমাগত বাড়ে, আমার কি করা উচিত?

আপনার ডাক্তার কে অতিসত্বর সে সম্পর্কে অবগত করান।

কিভাবে আমি আমার রেডিয়েশন হওয়া অঞ্চলটির যত্ন নেব ?

আপনার পেশাদারী স্বাস্থ্যসেবা দলটি আপনাকে যত্ন নেওয়ার দিকনির্দেশ গুলি নিয়ে সাহায্য করবেন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই, রেডিয়েশন হওয়া অঞ্চলটির চারপাশের ত্বক সংবেদনশীল হয় তা কিছুতেই ক্ষতিকর রাসায়নিক (কসমেটিক/প্রসাধনী) এর সংস্পর্শে এবং সরাসরি সূর্যের আলোর সংস্পর্শে না আসাই বাঞ্ছনীয়।

সহায়তা প্রয়োজন?

যোগাযোগ করুন

নিম্নলিখিত তথ্যগুলি সঠিকভাবে পূরণ করুন যাতে আমরা আপনার সাথে যোগাযোগ করতে পারি

ধন্যবাদ!

যোগাযোগ করার জন্য ধন্যবাদ! আমরা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আপনার সাথে যোগাযোগ করব।

দ্রুত উত্তরের জন্য, আপনি ওয়েবসাইটের নীচে হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট বোতামটি ব্যবহার করে আমাদের সাথে চ্যাট করতে পারেন।