মস্তিষ্কের টিউমার চিকিত্সার জন্য ভারতের সেরা চিকিৎসক

Dr. Puneet Agarwal

ডাঃ পুনিত আগরওয়াল

ডাঃ পুনিত আগরওয়াল | পরিচালক – স্নায়ুবিজ্ঞান (স্ট্রোক এবং ডিমেনশিয়া), ম্যাক্স সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল, সাকেট, নয়াদিল্লি, ভারত | অ্যাপয়েন্টমেন্ট ও সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন!

প্রোফাইল দেখুন এবং যোগাযোগ করুন »
Dr. Vipul Gupta 1

ডাঃ বিপুল গুপ্ত

ডাঃ বিপুল গুপ্ত | চিফ – নিউরো-ইন্টারভেনশনাল সার্জারি এবং কো-চিফ স্ট্রোক ইউনিট, আর্টেমিস হাসপাতাল, গুড়গাঁও | অ্যাপয়েন্টমেন্ট ও সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন!

প্রোফাইল দেখুন এবং যোগাযোগ করুন »
Dr. V.P. Singh

ডাঃ ভি পি সিং

ডাঃ ভি পি সিং| চেয়ারম্যান, ইনস্টিটিউট অফ নিউরোসায়েন্সেস, মেদন্ত – দ্য মেডিসিটি, গুড়গাঁও, ভারত | অ্যাপয়েন্টমেন্ট ও সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন!

প্রোফাইল দেখুন এবং যোগাযোগ করুন »
Dr. Mukesh Kumar

ডাঃ মুকেশ কুমার

ডাঃ মুকেশ কুমার | অধ্যক্ষ পরামর্শদাতা এবং প্রধান (পার্কিনসন ডিজিজ ইউনিট), ম্যাক্স সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল, নয়াদিল্লি, ভারত | অ্যাপয়েন্টমেন্ট ও সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন!

প্রোফাইল দেখুন এবং যোগাযোগ করুন »
Dr. Sudhir Dubey

ডাঃ সুধীর দুবে

ডাঃ সুধীর দুবে | চেয়ারম্যান – এন্ডোস্কোপিক পোর্টাল ন্যূনতম আক্রমণাত্মক নিউরোসার্জারি, ইনস্টিটিউট অফ নিউরোসায়েন্সেস; মেদন্ত- দ্য মেডিসিটি,, গুড়গাঁও | অ্যাপয়েন্টমেন্ট ও সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন!

প্রোফাইল দেখুন এবং যোগাযোগ করুন »
Dr. Abhaya Kumar

ডা: অভয় কুমার

ডা: অভয় কুমার | পরামর্শদাতা, নিউরো সার্জারি এবং মেরুদণ্ডের সার্জারি | কোকিলাবেন ধীরুভাই আম্বানি হাসপাতাল, মুম্বই, ভারত | অ্যাপয়েন্টমেন্ট ও সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন!

প্রোফাইল দেখুন এবং যোগাযোগ করুন »

মস্তিষ্কের টিউমার চিকিত্সার জন্য ভারতের সেরা হাসপাতালগুলো

Apollo Hospital, Chennai

অ্যাপোলো হাসপাতাল, চেন্নাই

অ্যাপোলো হাসপাতাল, চেন্নাই | ভারতের প্রিমিয়ার সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল, অ্যাপোলো হসপিটাল চেন্নাই সমস্ত সাধারণ এবং উন্নত চিকিত্সা হস্তক্ষেপে বিশেষায়িত। অ্যাপোলো বিশ্বজুড়ে রোগীদের সেবা দেয় | অ্যাপয়েন্টমেন্ট এবং সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন!

পেজ দেখুন এবং যোগাযোগ করুন »
Artemis Hospital, Gurugram

আর্টেমিস হাসপাতাল, গুরুগ্রাম

আর্টেমিস হাসপাতাল, গুরুগ্রাম | শীর্ষস্থানীয় সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালগুলির মধ্যে একটি | আর্টেমিস হাসপাতাল ভারতের শীর্ষ 10 হাসপাতালের মধ্যে গণ্য হয়। আর্টেমিস সারা বিশ্ব থেকে রোগীদের সেবা দেয় | অ্যাপয়েন্টমেন্ট এবং সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন!

পেজ দেখুন এবং যোগাযোগ করুন »
Indraprastha Apollo Hospital

ইন্দ্রপ্রস্থ আ্যপোলো হাসপাতাল, নয়াদিল্লি

ইন্দ্রপ্রস্থ আ্যপোলো হাসপাতাল | ভারতের প্রিমিয়ার সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল সমস্ত সাধারণ এবং উন্নত মেডিকেল হস্তক্ষেপে বিশেষীকরণ করেছে | অ্যাপোলো বিশ্বজুড়ে রোগীদের সেবা দেয় | অ্যাপয়েন্টমেন্ট এবং সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন!

পেজ দেখুন এবং যোগাযোগ করুন »
Kokilaben Dhirubhai Ambani Hospital, Mumbai

কোকিলাবেন ধীরুভাই অম্বানি হাসপাতাল, মুম্বাই

কোকিলাবেন ধীরুভাই অম্বানি হাসপাতাল, মুম্বাই | ভারতের অন্যতম বৃহত সুপার-স্পেশালিটি হাসপাতাল, কোকিলাবেন হাসপাতালে সমস্ত বড় সুপার-বিশেষত্বের জন্য একটি দুর্দান্ত মেডিকেল দল রয়েছে | অ্যাপয়েন্টমেন্ট এবং সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন!

পেজ দেখুন এবং যোগাযোগ করুন »
Jaypee Hospital

জয়পি হাসপাতাল, নোইডা

জেপি হাসপাতাল, নোইডা | জেপি হাসপাতাল দিল্লি এনসিআরের অন্যতম বৃহত্তম হাসপাতাল | কার্ডিওলজি, অনকোলজি, অস্থি চিকিত্সা ইত্যাদির মতো বিশেষত্বের জন্য জয়পীর ভাল মেডিকেল দল রয়েছে অ্যাপয়েন্টমেন্ট এবং সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন!

পেজ দেখুন এবং যোগাযোগ করুন »
Narayana Superspeciality Hospital

নারায়ণা সুপারস্পেশালিটি হাসপাতাল, গুরুগ্রাম

গুরুগ্রামের ডিএলএফ সাইবার সিটির (DLF Cyber City) নিকটে অবস্থিত, নারায়ণ সুপারস্পেশালিটি হাসপাতাল হ’ল দিল্লী এনসিআর অঞ্চলের অন্যতম শীর্ষ চিকিত্সা পরিষেবা, যা মানুষের চাহিদা পূরণ করে।

পেজ দেখুন এবং যোগাযোগ করুন »
psri hospital

পিএসআরআই হাসপাতাল (পুষ্পাবতী সিংহানিয়া হাসপাতাল)

১৯৯৬ সালে প্রতিষ্ঠিত, পুষ্পবতী সিংহানিয়া গবেষণা ইনস্টিটিউটটি (Pushpawati Singhania Research Institute) এনসিআর অঞ্চলের (NCR region) শীর্ষস্থানীয় হাসপাতালগুলির মধ্যে একটি হওয়ার পাশাপাশি গ্যাস্ট্রোএন্ট্রোলজির জন্য ভারতের শীর্ষস্থানীয় সুবিধাগুলির মধ্যে একটি। হজমজনিত রোগ সম্পর্কিত চিকিত্সা ও শল্যচিকিত্সার জন্য হাসপাতালটি দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম একটি প্রতিষ্ঠান।

পেজ দেখুন এবং যোগাযোগ করুন »
FMRI Gurgaon

ফর্টিস মেমোরিয়াল রিসার্চ ইনস্টিটিউট, গুরুগ্রাম

ফর্টিস মেমোরিয়াল রিসার্চ ইনস্টিটিউট, গুরুগ্রাম | ভারতের প্রিমিয়ার সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল, ফোর্টিস সমস্ত সাধারণ এবং উন্নত চিকিত্সা হস্তক্ষেপে বিশেষায়িত | ফোর্টিস সারা বিশ্ব থেকে রোগীদের সেবা দেয় | অ্যাপয়েন্টমেন্ট এবং সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন!

পেজ দেখুন এবং যোগাযোগ করুন »
BLK Super Specialty Hospital

বি এল কে সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল, নয়াদিল্লি

বি এল কে সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল, নয়াদিল্লি| ভারতের শীর্ষস্থানীয় একটি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল, বিএলকে কেবল ভারত নয়, সারা বিশ্ব থেকে রোগীদের সেবা দেয় | অ্যাপয়েন্টমেন্ট এবং সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন!

পেজ দেখুন এবং যোগাযোগ করুন »
Manipal Hospital

মনিপাল হাসপাতাল, দ্বারকা, নয়া দিল্লি

মনিপাল হাসপাতাল, দ্বারকা, নয়া দিল্লি | মনিপাল হাসপাতাল, দ্বারকা দিল্লি এনসিআর-এ একটি নতুন এবং দ্রুত বর্ধমান হাসপাতাল | অ্যানকোলজি, কার্ডিওলজি এবং সিটিভিএস, অর্থোপেডিকস ইত্যাদির মতো বিশেষজ্ঞের জন্য মণিপালের একটি ভাল মেডিকেল দল রয়েছে | অ্যাপয়েন্টমেন্ট এবং সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন!

পেজ দেখুন এবং যোগাযোগ করুন »
Medanta-the Medicity

মেদান্ত- দ্য মেডিসিটি, গুরুগ্রাম

মেদান্ত- দ্য মেডিসিটি, গুরুগ্রাম | বিশ্বখ্যাত হার্ট সার্জন ডাঃ নরেশ ত্রিহান প্রতিষ্ঠিত, মেদন্ত ভারতের অন্যতম নামী সুপার-স্পেশালিটি হাসপাতাল হিসাবে গড়ে উঠেছে। মেদন্তা আজ বিশ্বজুড়ে সমস্ত বড় অসুস্থতার জন্য রোগীদের সেবা করে | অ্যাপয়েন্টমেন্ট এবং সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন!

পেজ দেখুন এবং যোগাযোগ করুন »
Max Hospital, Saket, New Delhi

ম্যাক্স সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল, সাকেত, নয়াদিল্লি

ম্যাক্স সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল, সাকেত, নয়াদিল্লি | ভারতের প্রিমিয়ার সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল, ম্যাক্স নয়াদিল্লি সমস্ত সাধারণ এবং উন্নত চিকিত্সা হস্তক্ষেপে বিশেষায়িত | সর্বোচ্চ বিশ্বজুড়ে রোগীদের সেবা দেয় | অ্যাপয়েন্টমেন্ট এবং সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন

পেজ দেখুন এবং যোগাযোগ করুন »

ব্রেন টিউমারের কারণ

ব্রেন টিউমারের সঠিক কারণ নির্ধারণ করা এখনো পর্যন্ত সম্ভব হয়নি। তবে সাধারণ ভাবে, নিম্নলিখিত বিষয়গুলিকে ব্রেন টিউমারের উল্লেখযোগ্য কারণ বলে মনে করা হয়:

পারিবারিক ইতিহাস ও বংশগতি

ব্রেন টিউমারের মত রোগ বা শারীরিক ব্যাধি অনেক ক্ষেত্রেই জিনগতভাবে এক প্রজন্ম থেকে আরেক প্রজন্মে প্রবাহিত হয়। এই কারণে, যদি আপনার পরিবারের কারোর ব্রেন টিউমারের ইতিহাস থেকে থাকে, অর্থাৎ পূর্বে কেউ এই ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে থাকে, তবে আপনারও ব্রেন টিউমার হবার সম্ভাবনা থাকে। আমাদের দেহের কোষগুলি অসংখ্য ডি এন এ দ্বারা গঠিত। এই ডি এন এ, অর্থাৎ ডাই-রাইবো নিউক্লিক অ্যাসিড হলো এক ধরণের রাসায়নিক যৌগ যা আমাদের জিনের গঠনে মুখ্য ভূমিকা গ্রহণ করে। ওই জিন দ্বারাই আমাদের দেহকোষের কার্যকলাপ নির্ধারিত হয়। যদি কোষের অভ্যন্তরে ডি এন এ-র কোনো উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন দেখা দেয়, তার ফলস্বরূপ আমাদের দেহের কোষগুলি অনিয়ন্ত্রিতভাবে এবং অস্বাভাবিক ভাবে বিভাজিত হতে শুরু করে।

মানবদেহে প্রধানতঃ দুই ধরণের জিন পাওয়া যায়:

  • অঙ্কোজিন, যা কোষের স্বাভাবিক বৃদ্ধি ও বিভাজনে প্রধান ভূমিকা পালন করে
  • টিউমার সাপ্রেসর জিন বা টিউমার নিয়ন্ত্রণকারী জিন, যা উপস্থিত কোষগুলির বৃদ্ধি ও বিভাজন নিয়ন্ত্রণ করে। এই জিনগুলি দেহে বর্তমান কোষগুলিকে ধ্বংস করতে সাহায্য করে, যার ফলে নতুন, সুস্থসবল কোষ জন্মাতে পারে।

 

এই অঙ্কোজিন বা টিউমার সাপ্রেসর জিনের মধ্যে কোনো একটি যদি কাজ না করে, তবে শরীরের ভারসাম্য বিঘ্নিত হয় এবং তার ফলে ব্রেন টিউমার বা অন্যান্য ক্যান্সারের সম্ভাবনা দেখা দিতে পারে।

পূর্বতন রোগ ব্যাধির ইতিহাস

যদি আপনি ইতিপূর্বে কোনো রকম ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে থাকেন, তবে আপনার ব্রেন টিউমার হবার সম্ভাবনা অনেক গুণ বেড়ে যায়। চিকিৎসা বিজ্ঞান অনুযায়ী, আমাদের শরীরে ক্যান্সার কোষগুলি দীর্ঘকাল যাবৎ সুপ্ত অবস্থায় থাকতে পারে, এবং বহুকাল পরেও তা হঠাৎ প্রতিক্রিয়া করতে পারে। এই কারণেই, পূর্বে ক্যান্সার থাকা পরবর্তীতে ব্রেন টিউমার না অন্যান্য প্রকার ক্যান্সার সৃষ্টিকারী ক্যান্সার কোষের দ্রুত ও অস্বাভাবিক বিভাজন হবার একটি উল্লেখযোগ্য শর্ত হিসেবে পরিগণিত হয়। এবং এই একই কারণে, দীর্ঘকাল পূর্বের সুপ্ত অবস্থায় থাকা ক্যান্সার পুনরায় দেহে প্রতিক্রিয়া ঘটাতেও সক্ষম হয়। যদি কোনো ব্যক্তি পূর্বে লিউকিমিয়া অর্থাৎ রক্তের ক্যান্সার বা নন-হজকিন্স লিম্ফোমায় আক্রান্ত হয়ে থাকেন, তবে পরবর্তীকালে, পূর্ণবয়স্ক অবস্থায় তার ব্রেন টিউমার হবার প্রবল সম্ভাবনা থাকে। এর সাথে সাথেই, শৈশবে কোনোরূপ ক্যান্সার থাকাও পরবর্তী কালে ব্রেন টিউমারের উল্লেখযোগ্য কারণ হিসেবে বিবেচিত হয়।

রেডিয়েশনের সংস্পর্শে আসা

বারংবার রেডিয়েশন অর্থাৎ উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন বিকিরণের সংস্পর্শে আসার ফলে ব্রেন টিউমারের সম্ভাবনা উল্লেখযোগ্য ভাবে বৃদ্ধি পায়। পেশাগত কারণে কাজের জায়গার পরিবেশে বিকিরণকারী রশ্মির উপস্থিতির ফলে, অথবা ক্যান্সারের চিকিৎসার অংশ হিসেবে কেমোথেরাপি বা রেডিয়েশন থেরাপি জাতীয় চিকিৎসার প্রভাবেও এই ঝুঁকি বাড়তে পারে। এমনকি সিটি স্ক্যান বা এম আর আই জাতীয় ইমেজিং টেস্ট বারবার করানোর ফলেও রেডিয়েশনের ঝুঁকি থেকে যায়।

উপরিউক্ত রেডিয়েশনের উদাহরণগুলি ছাড়াও এমন কিছু ক্ষেত্র রয়েছে, যার দ্বারা আমরা সকলেই কম বেশি প্রভাবিত। মোবাইল এবং বৈদ্যুতিক সংযোগ হলো এমন দুটি ক্ষেত্র যা থেকে সবসময়ই রেডিয়েশনের ঝুঁকি থাকে। এই মোবাইল এবং বৈদ্যুতিক সংযোগ (পাওয়ার লাইন) থেকে এক ধরণের আয়ন-বিহীন বিকিরণ বা রেডিয়েশন হয়, যা এক্স রে বা এম আর আই ইত্যাদির তুলনায় মৃদু ক্ষমতাসম্পন্ন হলেও তাতে রেডিয়েশনের প্রভাব একইরকম থাকে। বারংবার এই সমস্ত জিনিসের সংস্পর্শে আসা আমাদের শরীরে ব্রেন টিউমারের ঝুঁকি বাড়িয়ে তোলে।

দুর্বল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

দেহের স্বভাবিক রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল হলে নানা রকম রোগ ব্যাধি দেখা দিতে পারে, যার ফলে ব্রেন টিউমার হবার সম্ভাবনা অনেক গুণ বেড়ে যায়। একটি সাম্প্রতিক গবেষণায় চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন যে যেসব ব্যক্তি এইডস বা এইচ আই ভি রোগে আক্রান্ত, সাধারণের তুলনায় তাঁদের ব্রেন টিউমার হবার ঝুঁকি অনেক বেশী।

বয়স

যদিও ব্রেন টিউমার হবার কোনো নির্দিষ্ট বয়স নেই, তা সত্ত্বেও চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণ ও সাম্প্রতিক গবেষণার ফলাফল অনুযায়ী, বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ব্রেন টিউমারের সম্ভাবনাও বৃদ্ধি পায়।

ওবেসিটি বা স্থূলতা

বিরল হলেও দেহে অতিরিক্ত মেদবৃদ্ধি বা স্থূলতা ব্রেন টিউমারের একটি উল্লেখযোগ্য কারণ বলে বিবেচিত হয়। প্রতি বছর গড়ে ২ শতাংশ মানুষ এই স্থূলতার কারণে ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত হন। এবং সাধারণত পুরুষদের তুলনায় নারীদের মধ্যে এই প্রবণতা বেশি মাত্রায় লক্ষ্য করা যায়।

সাহায্য প্রয়োজন?

যোগাযোগ করুন

ধন্যবাদ!

যোগাযোগ করার জন্য ধন্যবাদ! আমরা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আপনার সাথে যোগাযোগ করব।

দ্রুত উত্তরের জন্য, আপনি ওয়েবসাইটের নীচে হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট বোতামটি ব্যবহার করে আমাদের সাথে চ্যাট করতে পারেন।

টেলিগ্রামে যোগাযোগ করুন